বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৬ ১৪২৬   ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

২৫২

সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হলো জেএসসি ও জেডিসির প্রথম পরীক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্রকাশিত: ২ নভেম্বর ২০১৯  

আজ শনিবার থেকে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। জেএসসির প্রথম দিনে বাংলা ও জেডিসির প্রথম দিনে কুরআন মাজিদ ও তাজভিদ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উভয় পরীক্ষাই শুরু হয়েছে সকাল ১০টায়। জেএসসি পরীক্ষা শেষ হবে আগামী ১১ নভেম্বর ও জেডিসি পরীক্ষা শেষ হবে আগামী ১৩ নভেম্বর।

পরীক্ষা শুরুর পূর্ব থেকেই প্রশ্নফাঁস, নকলের মতো বিষয়গুলো এড়াতে কঠোর ছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নকল বা প্রশ্নফাঁসের গুজব রুখতে সোচ্চার ছিল ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সাইবার টেরোরিজম ইউনিট। পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে আগামী ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত সব কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। পরীক্ষা কেন্দ্রগুলোতে ছিল কঠোর নিরাপত্তা। ফলে বিগত বছরের মতো এবারেও কোন প্রকার বিশৃঙ্খলা ছাড়াই অনুষ্ঠিত হলো প্রথম দিনের এই পরীক্ষা। বাকি সকল পরীক্ষাও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন সংশ্লিষ্টরা।

শনিবার (২ অক্টোবর) জেএসসি-জেডিসি প্রথম দিনের পরীক্ষার কেন্দ্র পরিদর্শনে কেরানীগঞ্জের জিঞ্জিরা পিএম পাইলট উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে যান শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এসময় তিনি বলেন, 'সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব রটনাকারীদের শনাক্তকরণে গোয়েন্দা সংস্থা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাজ করছে। যারা এসব কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত হবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

শিক্ষামন্ত্রী আরো জানান, 'পাবলিক পরীক্ষা চলার সময় কোচিং সেন্টার পরিচালনাকারী শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শীঘ্রই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি বলেন, ‘পরীক্ষা চলাকালীন সময় সব ধরনের কোচিং বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। মিডিয়া সহযোগিতা করছে কোচিংয়ের বিরুদ্ধে। অথচ তাদের ওপর হামলা হয়েছে। এটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।’

শিক্ষামন্ত্রী জানান, 'কোচিং বাণিজ্যের অভিযোগে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের আজিমপুর শাখার শিক্ষক কানিজ ফাতেমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

পরীক্ষাকেন্দ্র পরিদর্শনের সময় শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক এবং আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজ বাংলার আলো
নিউজ বাংলার আলো
এই বিভাগের আরো খবর