বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৫ ১৪২৬   ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

১৭৫১

সালমান মুক্তাদিরকে সিটিটিসির জিজ্ঞাসাবাদ

প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

ইন্টারনেটে অশ্লীল ও অপ্রাসঙ্গিক কনটেন্ট আপলোডের অভিযোগে ইউটিউবার সালমান মুক্তাদিরকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি)। 

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) সিটিটিসি ইউনিটের সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগ সালমান মুক্তাদিরকে এ জিজ্ঞাসাবাদ করে।

মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টায় সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগের কার্যালয়ে এলে তার জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়। 

বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) মোহাম্মদ নাজমুল হাসান বলেন, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি (আইসিটি) মন্ত্রীর (মোস্তাফা জব্বার) ‘সেইফ ইন্টারনেট’ বা নিরাপদ ইন্টারনেট স্লোগানকে সামনে রেখে ডিএমপি এর সাইবার ক্রাইম ইউনিট সালমান মুক্তাদিরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। 

তবে জিজ্ঞাসাবাদে কী ধরনের তথ্য সালমান মুক্তাদিরের কাছ থেকে পাওয়া গেছে সে বিষয়ে এখন পর্যন্ত কিছু বলা হয়নি পুলিশের পক্ষ থেকে।

পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক সিটিটিসির এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ইন্টারনেট বা ভার্চুয়াল জগতকে নিরাপদ রাখতে আমরা সর্বদাই কাজ করে যাচ্ছি। ইন্টারনেটে আপত্তিকর ও অশ্লীল কনটেন্ট ছড়ানোর অভিযোগে সম্প্রতি আমরা এক মডেলকে জিজ্ঞাসাবাদ করি। তখন সালমান মুক্তাদিরের বিভিন্ন কনটেন্ট নিয়ে আমাদের কাছে অভিযোগ আসতে থাকে। তারই প্রেক্ষিতে আমরা আমাদের তদন্তের জন্য তাকে জিজ্ঞাসাবাদের সিদ্ধান্ত নেই।

এ ব্যাপারে সালমান মুক্তাদিরের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে প্রথম সফল ইউটিউবার হিসেবে সালমান মুক্তাদির সাফল্য পেলেও বিভিন্ন সময়েই তার ভিডিও ও অন্যান্য কনটেন্ট বিতর্কের জন্ম দেয়। সম্প্রতি জেসিয়ার সঙ্গে ছাড়াছাড়ির পর ‘অভদ্র প্রেম’ নামে সালমানের প্রকাশিত একটি ভিডিও ইউটিউবে প্রকাশিত হলে সেটিও বেশ সমালোচনার মুখে পড়ে।

নিউজ বাংলার আলো
নিউজ বাংলার আলো
এই বিভাগের আরো খবর