বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৫ ১৪২৬   ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

১৫৬

ষড়যন্ত্রের শিকার জাবি ভিসি

প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাগত পরিবেশকে নষ্ট করতে ও উদ্দেশ্য-প্রণোদিতভাবে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচর্যের বিরুদ্ধে সম্প্রতি মিথ্যা এবং অসত্য সংবাদ প্রকাশ করছে একটি মহল। উদ্দেশ্যগতভাবেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করে তোলার লক্ষ্যে কিছু শিক্ষক সংবাদ মাধ্যমগুলোতে মিথ্যা সংবাদ প্রচার করছে বলে জানিয়েছে জাবি বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ।

রোববার বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ প্যাডে পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান চৌধুরী ও সম্পাদক অধ্যাপক বশির আহমেদ স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়। 

আগে থেকেই কিছু ভিসি বিরোধী শিক্ষক আছেন যারা বর্তমান ভিসির বিভিন্ন কাজে বিরোধিতা করে আসছেন, তারা সাম্প্রতিক কথিত পরিবেশবাদী ছাত্র আন্দোলনকে পুঁজি করে পরিস্থিতিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য চেষ্টা করে আসছেন। সংবাদ মাধ্যমকে মিথ্যা বানোয়াট ও অসত্য তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত করছেন। 

আন্দোলনকারীরা ভিসির সুনামকে ক্ষুন্ন করার জন্য দুর্নীতির ইশতেহার নিয়ে প্রচারপত্র বিলি   করেছেন বলে জানানো হয় বিজ্ঞপ্তিতে, মিথ্যে বানোয়াট ও দুর্নীতি আখ্যা দিয়ে কাউকে সম্মানহানী করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ।  

গণমাধ্যমে ইতোমধ্যে জাবি’র ভিসি ফারজানা ইসলাম ছাত্রলীগের সাথে লেনদেনের বিষয় নিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন গণমাধ্যমকে। ভিসি বা তার পরিবার জাবির উন্নয়ন কাজে দুর্নীতির সাথে জড়িত না। যারা এই কল্পিত অভিযোগ করেছেন তাদের প্রমাণ করতে হবে যে, দুর্নীতির বিষয়টি  স্পষ্ট। তা না হলে তা প্রমাণ হয় না।   

টিআইবি’র করা প্রতিবেদনের পর জাবির প্রায় তিন’শ শিক্ষক প্রতিবাদ জানিয়ে স্বাক্ষর করেছেন,এখানে দলমত প্রাধান্য ছিল না।

যারা সংবাদপত্রের খবর কোট করে মিথ্যে খবরকে প্রচার করেছেন তাদের প্রমাণ  করতে হবে দুর্নীতির বিষয়টি সত্য নতুবা তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

নিউজ বাংলার আলো
নিউজ বাংলার আলো
এই বিভাগের আরো খবর