বুধবার   ১৫ জুলাই ২০২০   আষাঢ় ৩১ ১৪২৭   ২৪ জ্বিলকদ ১৪৪১

১৮৩

রিজভীর মিথ্যাচার!

প্রকাশিত: ১৮ মে ২০২০  

দেশে উদ্ভূত করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিরামহীনভাবে কাজ করছে সরকার। তারই ধারাবাহিকতায় এবার সরকারের পক্ষ থেকে কর্মহীন হয়ে পড়া ৫০ লাখ পরিবারকে আড়াই হাজার টাকা করে নগদ অর্থ সহায়তা দেয়া হয়েছে। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে সুবিধাভোগীরা এই অর্থ সহায়তা পেয়েছেন। সরকারের এমন মহতী উদ্যোগে দেশবাসী সন্তুষ্টি প্রকাশ করলেও নাখোশ হয়েছেন বিএনপি নেতারা।

এর প্রেক্ষিতে শনিবার (১৬ মে) বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ বলেছেন, গরীবের জন্য প্রধানমন্ত্রীর বরাদ্দ দেওয়া আড়াই হাজার টাকা থেকে ৫শ টাকা রেখে দেওয়া হচ্ছে।

রিজভীর এই বক্তব্যকে ‘গুজব’ আখ্যা দিয়ে দেশের রাজনৈতিক বিশিষ্টজনরা বলছেন, এই সহায়তা হাতে হাতে নয় বরং মোবাইলে দেয়া হচ্ছে। সুতরাং উপকারভোগী ছাড়া অন্য এই অর্থ কেউ তুলতে পারবে না। তাই নগদ অর্থ বিতরণ নিয়ে রিজভী সরকারকে না বুঝেই দোষারোপ করছেন। সরকারি প্রণোদনায় জনগণ খুশি হওয়ায় জনসমর্থন হারানোর ভয় থেকেই তিনি এমন গুজব ছড়াচ্ছেন।

রাজনৈতিক বিজ্ঞজনরা আরও বলছেন, করোনার এই সময়ে খাদ্য সামগ্রীর পাশাপাশি দুস্থ ও নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করায় দেশবাসীর কাছে প্রশংসিত হয়েছে বর্তমান সরকার। কারণ, ত্রাণের পাশাপাশি নগদ অর্থ দেয়ায় সুবিধাভোগীরা প্রয়োজনীয় সামগ্রী কিনতে পারবেন। তাছাড়া সংকটে নগদ অর্থ এক ধরনের মানসিক শক্তি যোগায়, ফলে মানুষের পক্ষে টিকে থাকাটাও সহজ হয়। কিন্তু বিএনপি নেতারা বিষয়টিকে স্বাভাবিকভাবে না নিয়ে উল্টো সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে গুজব ছড়াচ্ছে।

নিউজ বাংলার আলো
নিউজ বাংলার আলো
এই বিভাগের আরো খবর