শুক্রবার   ১০ জুলাই ২০২০   আষাঢ় ২৬ ১৪২৭   ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪১

৭০৪

করোনায় ‘কাইশ্যা’র মৃত্যু

প্রকাশিত: ৩০ মার্চ ২০২০  

বাংলাদেশের দর্শকদের কাছে ‘কাইশ্যা’ নামে পরিচিতি জাপানের কমেডিয়ান কেন শিমুরা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। জ্বর ও নিউমোনিয়ার কারণে ৭০ বছর বয়সী কেন শিমুরাকে ২০ মার্চ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। এর তিন দিন পর করোনাভাইরাস ধরা পড়ে তাঁর। একসময় অবস্থার অবনতি হতে থাকে তাঁর। অবশেষে গতকাল রোববার রাতে তিনি চলে যান না–ফেরার দেশে।

আজ সোমবার কেন শিমুরার মৃত্যুর খবর জানিয়েছে জাপানের ন্যাশনাল ব্রডকাস্টিং অর্গানাইজেশন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, গতকাল রোববার চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। টোকিওর একটি হাসপাতালে মারা যান তিনি। তবে কোন হাসপাতালে মারা গেছেন, তা জানায়নি সংবাদ সংস্থাটি।

জাপানের অভিনেতা কেন শিমুরা। ছবি: ফেসবুক থেকে

জাপানের অভিনেতা কেন শিমুরা। ছবি: ফেসবুক থেকে

বাংলাদেশের দর্শকদের কাছে ‘কাইশ্যা’ নামে পরিচিতি জাপানের কমেডিয়ান কেন শিমুরা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। জ্বর ও নিউমোনিয়ার কারণে ৭০ বছর বয়সী কেন শিমুরাকে ২০ মার্চ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। এর তিন দিন পর করোনাভাইরাস ধরা পড়ে তাঁর। একসময় অবস্থার অবনতি হতে থাকে তাঁর। অবশেষে গতকাল রোববার রাতে তিনি চলে যান না–ফেরার দেশে।

আজ সোমবার কেন শিমুরার মৃত্যুর খবর জানিয়েছে জাপানের ন্যাশনাল ব্রডকাস্টিং অর্গানাইজেশন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, গতকাল রোববার চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। টোকিওর একটি হাসপাতালে মারা যান তিনি। তবে কোন হাসপাতালে মারা গেছেন, তা জানায়নি সংবাদ সংস্থাটি।

 

কেন শিমুরা ১৯৫০ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি জাপানের টোকিও শহরের হাইকমিশুরিয়ায় জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি ১৯৭০ সালের দিকে অভিনয়জগতে প্রবেশ করেন। বিশ্বজুড়েই কমেডিয়ান হিসেবে ব্যাপক জনপ্রিয় শিমুরা। বাংলাদেশে ‘পাগলা ডিরেক্টর’ নামের একটি অপেশাদার অনলাইনভিত্তিক গ্রুপ কেন শিমুরা অভিনীত বিভিন্ন ধারাবাহিক ডাবিং করে ফেসবুক এবং ইউটিউবে প্রচার করে। সেটি সব বয়সীর মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। বিশেষ করে বাংলায় ডাবিং করা ‘জীবনটা বেদনা, কিছু ভালো লাগেনা’ সংলাপটি দারুণ জনপ্রিয় হয়েছিল।

একটি নাটকের দৃশ্যে কেন শিমুরা। ছবি: ফেসবুক থেকে

একটি নাটকের দৃশ্যে কেন শিমুরা। ছবি: ফেসবুক থেকে

জাপানিজ এই কমেডিয়ানের ভিডিও বাংলা ছাড়াও পৃথিবীর বিভিন্ন ভাষায় প্রচার হয়ে আসছিল। দেশের ইউটিউব চ্যানেল পাগলা ডিরেক্টর কেন শিমুরার ভিডিও বাংলায় ডাব করে কাইশ্যা নামে প্রচার করছিল। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও এ দেশের দর্শকের কাছে খুব জনপ্রিয় হয়েছিল তাঁর অভিনীত ধারাবাহিকগুলো। অভিনয় দক্ষতা দিয়ে তিনি পৃথিবীর বহু মানুষকে বিনোদন দিয়ে আসছিলেন। তার মৃত্যুতে ভক্তদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে অনেকে তাঁর ছবি দিয়ে মৃত্যুর খবরে শোক বাক্য লিখেছেন। কৌতুক অভিনেতা হিসেবে তিনি এতটাই জনপ্রিয় ছিলেন যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাঁর মৃত্যুর খবরটি প্রকাশ করে অনেকে লিখছেন, বিষয়টি সত্যিই ঘটেছে। কৌতুক নয়!

কেন শিমুরা ১৯৫০ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি জাপানের টোকিও শহরের হাইকমিশুরিয়ায় জন্ম গ্রহন করেন।

কেন শিমুরা ১৯৫০ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি

জাপানের টোকিও শহরের হাইকমিশুরিয়ায় জন্ম গ্রহন করেন।শিমুরা তার সময়ের জাপানি কৌতুক অভিনেতাদের মধ্যে ব্যতিক্রম ছিলেন। তিনি দ্য ইয়োতে ​​অভিনয়ের জন্য বেশি নাম করেছিলেন। ৭০ বছর বয়সী শিমুরা টিভি শোতে ‘বাকা টোনোসামা’ (বোকা প্রভু) এবং ‘হেনা ওজিসান’ (অদ্ভুত চাচা) এর মতো জনপ্রিয় চরিত্রে অভিনয় করার জন্য পরিচিত। তাঁর এই বছরের এপ্রিল মাসে ‘দ্য নেইম এবাভ দ্যা টাইটেল’ উপন্যাস অবলম্বনে একটি সিনেমাতে কাজ শুরু করার কথা ছিল। এর আগেই তিনি চিরবিদায় নিলেন।

নিউজ বাংলার আলো
নিউজ বাংলার আলো
এই বিভাগের আরো খবর